Tuesday, December 7, 2021
Google search engine
Homeজেলার খবরনন্দীগ্রামে তৃণমূল-বিজেপি ধস্তাধস্তি, রাস্তায় বসে বিক্ষপ, উত্তেজনা চরম পর্যায়

নন্দীগ্রামে তৃণমূল-বিজেপি ধস্তাধস্তি, রাস্তায় বসে বিক্ষপ, উত্তেজনা চরম পর্যায়

mamata attack nandigram

আসন্ন বিধানসভা ভোটে সবার চোখ ছিলো নন্দীগ্রামের দিকে। আগে থেকেই  উত্তেজনা ছিলো নন্দীগ্রামে।সেই উত্তেজনা আজ সকাল থেকে বেড়ে যায়। নন্দীগ্রামের বিরুলিয়া বাজার এলাকায় ব্যাপক ঝামেলা শুরু হয়েছে। গতকাল সেখানেই একটি মন্দির থেকে বেরিয়ে আসার সময় পড়ে গিয়ে পায়ে চোট পান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।তিনি অভিযোগ করেন তাঁকে ইচ্ছা করে ধাক্কা মেরে  ফেলে দেওয়া হয়েছে। আজ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান পুলিশ সুপার ও জেলাশাসক।ঠিক তারপরেই তৃণমূল ও বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায় বলে জানা গেছে। প্রথমে তর্ক বিতর্ক চলে , তারপরে হাতাহাতি শুরু হয়ে যায় তৃণমূল ও বিজেপি কর্মীদের মধ্যে। তৃণমূলের অভিযোগ , মুখ্যমন্ত্রীর ওপরে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালানো হয়েছে। গোটাটাই ষড়যন্ত্র। উল্টো দিকে রাস্তায় বসে পড়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা তাঁরা এই দাবি তুলেন যে তৃণমূলের দ্বারা  পোঁতা খুঁটিতেই ধাক্কা লাগে মুখ্যমন্ত্রীর এবং এর ফলে আঘাত পান মুখ্যমন্ত্রী।

আসন্ন বিধান সভা নির্বাচনে খড়্গপুরের বিজেপি প্রার্থী অভিনেতা হিরণ

বুধবার সকালে হলদিয়ায় গিয়ে নন্দীগ্রামের পার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পর বিকেলে নন্দীগ্রামে ফিরে এসে মন্দিরে মন্দিরে ঘুরে পুজো দিচ্ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সন্ধ্যায় তিনি ছিলেন নন্দীগ্রাম দুনম্বর ব্লকে রেয়াপাড়ায় শিব মন্দিরে গিয়েছিলেন।সেখানেই ঘটনা ঘটে। 

চোট লাগার পর গাড়িতে বসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেন, মন্দির থেকে বেরোনোর সময় তাঁকে পিছন থেকে কেউ বা কারা ধাক্কা মারেন। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তিনি পরে যান। তাঁর দাবি ইচ্ছা করে ধাক্কা মারা হয় তাঁকে। ঘটনা স্থলে অনেকেই ছিল  কিন্তু তার মধ্যে থেকেই চক্রান্ত করে তাঁকে ধাক্কা মারা হয়। সেই কারনে তিনি মাটিতে পড়ে যান। তাঁর পায়ে চোট লেগেছে।পা ফুলেও গেছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সর্বোচ্চ পর্যায়ের নিরাপত্তা পান। তাঁকে সর্বক্ষণ ঘিরে থাকেন নিরাপত্তা রক্ষীরা। তা সত্ত্বেও কেউ তাঁকে পিছন থেকে কীভাবে ধাক্কা মারল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বিরোধী মহোল থেকে। প্রশ্ন উঠেছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েও।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বেরিয়ে গেলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো

নন্দীগ্রামের গতকালের এই ঘটনার পর থেকেই রাজ্য রাজনীতিতে বিজেপি-তৃণমূলের চাপানউতর চরম পর্যায় পৌঁছেছে। বিজেপি দাবি করেছে, ভোটের মুখে সহানুভূতি কুড়নোর জন্যই এমন বলছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে, তৃণমূল তাদের নিজস্ব টুইটারে দাবি করেছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর হামলার ঘটনা আগেও বহুবার হয়েছে। তাঁকে চুপ করাতেই এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments